১৭ জানুয়ারী ২০১৮,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষের কারণে পাবনা মেডিকেল বন্ধ ঘোষণা


ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষের কারণে পাবনা মেডিকেল বন্ধ ঘোষণা

নিজস্ব সংবাদদাতা, পাবনা ॥ ক্যাম্পাসে আধিপত্য বিস্তার ও সিনিয়র জুনিয়র দ্বন্দ্বের জেরে পাবনা মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। এ অবস্থায় কলেজ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। দুপুর ২টার মধ্যে ছাত্রদের হলত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। শুক্রবার ভোরে এ ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, পাবনা মেডিক্যাল কলেজ ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি মাহফুজ নয়ন মেডিসিন ক্লাব নিয়ন্ত্রণ করেন। অপরদিকে সাধারণ সম্পাদক অদ্বিতীয়দের নিয়ন্ত্রনে রয়েছে রোটারি ক্লাব গ্রুপ। নতুন শিক্ষার্থীদের বরণকে কেন্দ্র করে তাদের মধ্য বৃহস্পতিবার রাত থেকে ক্যাম্পাসে দফায় দফায় সংঘর্ষ হলে ভোরে তা নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়। এ সংঘর্ষে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১০ জন আহতের ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন মেডিকেল কলেজের সাবেক সভাপতি আবু তোরাব মিম, বঙ্গবন্ধু হলের সাংগঠনিক সম্পাদক মশিউর রহমান, উপ যুগ্ম সম্পাদক জয়দেব কুমার সূত্রধর, সদস্য নির্ঝর, সাগর আহম্মেদসহ ৫ জন।

এ ব্যাপারে পাবনা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ মো. রিয়াজুল হক জানিয়েছেন, তুচ্ছ বিষকে কেন্দ্র করে ছাত্ররা এই ক্যাম্পাসের পরিবেশ সুনাম নষ্ট করবে এটা মেনে নেয়া হবে না। উদ্ভুত পরিস্থিতিতে পাবনা মেডিকেল কলেজ অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বেলা দুইটার মধ্যে ছাত্রদের হোস্টেল ছেড়ে যাবার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আমরা ঘটনা তদন্ত করছি, যারাই এই ঘটনার সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আব্দুর রাজ্জাক জানান, ভোররাত থেকে পাবনা মেডিকেল কলেজের ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে কয়েক দফা সংঘর্ষ হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে বেশ কয়েকজনকে আহত অবস্থায় পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে। ক্যাম্পাসসহ হাসপাতাল চত্বরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। পরিস্থিতি বর্তমানে স্বাভাবিক রয়েছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: